CDN কি ও কেন

Amazon এর রিসার্চে দেখা গেছে তাঁদের সাইট যদি মাত্র ১০০ মিলি সেকেন্ড স্লো হয় তার জন্য ১% কাস্টমার হারাতে হয়। এটা খুব ই সাধারণ ব্যাপার এখন যেসব ওয়েবসাইট ফাস্ট হবে তার সেলস কনভার্সন ভাল হবে উদাহরণ সরূপ আমরা ই ক্যাব মেম্বার chaldal.com এর কথাই ধরতে পারি। একবার চিন্তা করে দেখুন তাঁদের সাইট যদি সামান্য একটু স্লো হয় বাজার করতে আপনার কেমন অসুবিধায় পরতে হবে।

তারা কিভাবে এত ভাল স্পিড মেইন্টেইন করে?
ডেভেলপমেন্ট কোয়ালিটি, হোস্টিং অবশ্যই একটা প্রধান ফ্যাক্টোর তবে তাঁদের একটা ইমেজ নিউ ট্যাব এ ওপেন করলে দেখবেন cdn.akamai.net থেকে ইমেজ লোড নিচ্ছে।

এই CDN টা কি?

CDN হল Content Delivery Network এটার কাজ হল আপনার সাইটের সব স্টাটিক ফাইল যেমন images, css, JS,ইত্যাদি আপনার কাস্টমার এর সব থেকে কাছের সার্ভার থেকে লোড নিবে।

আপনি AWS Cloud হোস্টিং ও ব্যবহার করেন, কিন্তু যদি CDN ব্যবহার না করেন তাহলে সাইট এই ফাইলস গুলো কাস্টমার এর ডিভাইসে লোড নিতে বাংলাদেশে প্রতিটি ফাইল ২০০ms এর বেশি সময় লাগতে পারে। এবং টোটাল সাইট লোড নিতেও বেশী সময় লাগবে।

CDN ব্যবহারের উপকারিতাঃ

১। কাস্টমার এক্সপেরিয়েন্স ভাল হবে
২। আপনার মেইন হোস্টিং সার্ভার এর উপর প্রেশার কম পরবে যাতে হোস্টিং এর খরচ কমানো যাবে

৩। Google এ ভাল র‍্যাঙ্ক করতে পারবেন।

৪। ফুল সাইট CDN ব্যবহার করলে সাইট DDOS বা অন্ন্যান্ন্য সিকুরিটি রিস্ক থেকে নিরাপদ থাকবে।

৫। হুট করে সাইটে বেশি ট্রাফিক আসলে হ্যান্ডেল করতে খুব একটা অসুবিধা হবেনা কারণ CDN সার্ভার এর ক্যশ থেকে সাইট সার্ভ হবে।

এখন আসুন যেকোন একটা CDN ব্যবহার করলেই কি হবে?

সহজ উত্তর হল না ! কারণ CDN এর কাজ ইউজারের সব থেকে নিকটবর্তী সার্ভার থেকে সাইট শো করানো। বাংলাদেশ এর ম্যাক্সিমাম ই কমার্স সাইট এখনো AWS Cloudfront CDN ব্যবহার করছে। যা ইন্ডিয়া / সিঙ্গাপুর থেকে ফাইল সার্ভ করে, তাই আমাদের দেশে AWS লেটেন্সি এখনো অনেক বেশি যাতে খুব একটা লাভ হয়না। তাছাড়া AWS এর খরচ অনেক বেশি।